এবার বাংলাদেশের কারও হজে যাওয়া হচ্ছে না ।


এবার বাংলাদেশের কারও হজে যাওয়া হচ্ছে না । অবশেষে করোনা ভাইরাসের প্রভাব পবিত্র হজ্জ- এ

করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে সৌদি আরব এবার অন্য দেশের হজযাত্রীদের সে দেশে প্রবেশের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে । সৌদি আরবের এই সিদ্ধান্তের কারনে বাংলাদেশসহ অন্য দেশের মুসল্লিরা এবার সৌদি আরবে গিয়ে পবিত্র হজ পালন করতে পারবেন না।

গতকাল সোমবার সৌদি আরবের হজ মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে দেশটির রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত ঘোষণায় এই সিদ্ধান্তের কথা জানানো হয়, সৌদি আরবে বর্তমানে স্থায়ীভাবে বসবাসরত জনগনের মধ্যে খুবই সীমিতসংখ্যক মুসল্লি এবারের পবিত্র হজে অংশ নিতে পারবেন।

আরও পড়ুন- করোনার পর বাংলাদেশ কেমন হবে?

সৌদি আরবের এই সিদ্ধান্তের ফলে অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশ থেকে নিবন্ধন করা ৬১ হাজার মুসল্লি এবারের পবিত্র হজ্জ- এ যেতে পারছেন না। এখন তাঁদের নিবন্ধনকৃত টাকা ফেরত দেওয়া হবে, না অন্য কিছু করা হবে, সেটি ঠিক করতে বাংলাদেশের ধর্মবিষয়ক মন্ত্রণালয় আগামীকাল বুধবার সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের নিয়ে সভা ডেকেছে ।

ধর্ম মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (হজ) এ বি এম আমিন উল্লাহ নুরী আজ মঙ্গলবার সংবাদমাধ্যমকে জানান, আগামীকাল দুপুরে এই সভা হবে।

মন্ত্রণালয়ের একজন কর্মকর্তা বলেন, হজ নিবন্ধনের জন্য যাঁরা টাকা জমা দিয়েছেন, তাঁদের টাকা ফেরত দেওয়া হবে, নাকি আগামী বছরের জন্য রাখা হবে, সেটা এই সভায় আলোচনার ভিত্তিতে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। কেউ যদি টাকা তুলে নিতে চান, সে ক্ষেত্রে কি করণীয়ও তা কাল ঠিক করা হবে। সভার সিদ্ধান্ত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে জানানো হবে।
কারণ, ধর্ম প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্বে থাকা শেখ মো. আব্দুল্লাহ মারা যাওয়ার পর এখন প্রধানমন্ত্রীই ধর্ম মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বে আছেন। তাঁর অনুমতি নিয়ে পরে বিজ্ঞপ্তি দিয়ে সিদ্ধান্ত জানিয়ে দেওয়া হবে।

আরও পড়ুন- যে চিন্তাগুলো মাথা থেকে ঝেড়ে ফেললে আপনিও পাবেন চাকরি।

ধর্ম মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, নির্ধারিত কোটা অনুযায়ী সরকারি ও বেসরকারি মিলিয়ে এবার বাংলাদেশ থেকে ১ লাখ ৩৭ হাজার মুসল্লির হজে যাওয়ার সুযোগ ছিল। কিন্তু এবার নিবন্ধন করেন ৬১ হাজার মুসল্লি। সৌদির সিদ্ধান্তের পর তাঁদের এবার আর হজে যাওয়ার সুযোগ থাকছে না।

Related Articles  CV তৈরিতে বা CV ই-মেইলে যে সকল ভুল হয়

তথ্যসূত্র – https://www.prothomalo.com/

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *